খন্দকার সাদিক-উন-নবী প্রার্থ‘র ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি লাভ

April 5, 2018, 10:33 p.m. সমগ্র বাংলা


বহুমূখী প্রতিভার অধিকারী খন্দকার সাদিক-উন-নবী প্রার্থ এবার প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি লাভ করেছে। এর আগে ২০১৭ সালে অনুষ্ঠিত প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) পরীক্ষা সে গোল্ডেন জিপিএ-৫ অর্জন করে।

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি:

বহুমূখী প্রতিভার অধিকারী খন্দকার সাদিক-উন-নবী প্রার্থ এবার প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি লাভ করেছে। এর আগে ২০১৭ সালে অনুষ্ঠিত প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিএসসি) পরীক্ষা সে গোল্ডেন জিপিএ-৫ অর্জন করে। সে মানিকগঞ্জ জেলার ঐতিহ্যবাহী ৮৮ নং সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে উক্ত পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করেছিল। বৃত্তি লাভ করে তার এই সাফল্যের ধারা অব্যাহত রেখেছে। শুধু স্কাইট, গান, আবৃত্তি, উপস্থিত বক্তৃতা আর বঙ্গবন্ধুর অনুকরণীয় ভাষণ প্রতিযোগীতায়ই সাফল্য অর্জন করে ক্ষান্ত হয়নি। শিক্ষা জীবনেও সে গৌরব উজ্জল কৃতিত্বের সাক্ষর রেখেছে।

খন্দকার সাদিক-উন-নবী প্রার্থ জাতীয় ইংরেজী দৈনিক ’দি ইন্ডিপেন্ডেন্ট’ পত্রিকার মানিকগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি ও জেলার সিনিয়র সাংবাদিক খন্দকার আশরাফ-উন-নবী ও আইনজীবি খন্দকার সাহিদা আক্তার শীলা’র কনিষ্ঠ পুত্র। কৃতি এ ছাত্র বর্তমানে মানিকগঞ্জ সরকারী বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রভাতী শাখায় ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে প্রভাতী শিফটে ‘ক’ শাখায় অধ্যায়নরত। তার একমাত্র অগ্রজ ভ্রাতা খন্দকার সিফাত-উন-নবী প্রীতম একই বিদ্যালয়ের ১০ শ্রেণীর মেধাবী ছাত্র। সেও একই বিদ্যালয় থেকে ২০১৩ সালে প্রাথমিক সমাপনী পরীক্ষায় ট্যালেন্টপুলে বৃত্তি অর্জন করে।

সাদিক মনে করে, বিদ্যালয়ের শিক্ষক মন্ডলী ও তার মা খন্দকার সাহিদা আক্তার শীলা’র অক্লান্ত পরিশ্রম, উৎসাহ আর অনুপ্রেরণাই আজকের এ ফলাফল। এ ধারাবাহিক সাফল্যের পিছনে যেসব শিক্ষক, অভিবাবক ও শুভানুধ্যায়ী ঐকান্তিক উৎসাহ, উদ্দীপনা আর প্রেরণা জুগিয়েছেন তাঁদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করে সকলের দোয়া ও ভালবাসা কামনা করেছে খন্দকার সাদিক-উন-নবী প্রার্থ।