ঘামের দুর্গন্ধ থেকে বাঁচবেন যেভাবে!

June 21, 2017, 2:33 a.m. লাইফ স্টাইল


কাজের প্রয়োজনে বাইরে থাকতেই হয়। আর সেকারণে শরীরে ঘাম ও ধুলোবালি থেকে দুর্গন্ধ হওয়া

লাইফ স্টাইল ডেক্স : এই গরমে কাজের প্রয়োজনে সারা দিন শরীর থেকে প্রচুর ঘাম নির্গত হয়। ফলে সেই ঘাম থেকে তৈরি হয় দুর্গন্ধ। যা নিয়ে অনেকেই বিব্রতকর অবস্থায় পড়েন। কাজের প্রয়োজনে বাইরে থাকতেই হয়। আর সেকারণে শরীরে ঘাম ও ধুলোবালি থেকে দুর্গন্ধ হওয়াটাও দোষের কিছু না। তবে নিজে সচেতন থাকলে শরীরের ঘাম দূর করতে পারবেন সহজেই। জেনে নিন সেই উপায়।

নিয়মিত গোসল

গরমকালে প্রতিদিন অন্তত দু’বার গোসলের অভ্যাস গড়ে তুলুন। শরীরের যেসব স্থানে দুর্গন্ধ বেশি হয়ে থাকে সেসব স্থানে সাবান দিয়ে ভাল করে পরিষ্কার করুন। আসলে জীবাণুমুক্ত থাকলে ঘামের দুর্গন্ধ হয় না। আর স্নানের পর অবশ্যই সারা শরীর ভালো করে মুছে নিন। যত শুকনো থাকবে শরীর ঘাম থেকে দুর্গন্ধ তত কম হবে।

পরিধানে সুতি কাপড়

গরমে অবশ্যই সুতির পোশাক পরা উচিত। তাছাড়া প্রতিদিন পরিষ্কার পোশাক পরুন। হালকা, ঢিলেঢালা ও আরামদায়ক পোশাকে মূলত ঘাম কম হবে। সুতির পোশাকে গায়ে দুর্গন্ধও হবে না।
বিশেষ সুগন্ধি ব্যবহার করুন

শরীরে সুগন্ধি ব্যবহার করুন। তবে সব সুগন্ধি কিংবা দামি সুগন্ধি হলেই যে তা কার্যকর হবে এমন নয়। ডিওডরান্ট ব্যাবহারের চাইতে অ্যান্টিপারসপিরান্ট (Antiperspirants) যুক্ত সুগন্ধ ব্যবহার করুন। ডিওডরান্ট থেকে ব্রেস্ট ক্যানসারের আশঙ্কা থাকলেও অ্যান্টিপারসপিরান্ট অনেক সুরক্ষিত। তাছাড়া অ্যান্টিপারসপিরান্ট ঘাম শুষে নিয়ে ত্বক অনেকক্ষণ শুষ্ক রাখতে সাহায্য করে।

পানি পান করুন

গরমকালে ঘামের দুর্গন্ধ থেকে রেহাই পেতে সবচেয়ে প্রয়োজন শরীরের পানি ধরে রাখা। অর্থাৎ নিজেকে হাইড্রেটেড রাখা। কাজেই দিনে অবশ্যই ৩ থেকে ৪ লিটার পানি পান করুন। যত পানি শরীরে দেবেন দেহ ততো টক্সিন অর্থাৎ বিষমুক্ত থাকবে। ফলে দুর্গন্ধও হবে না।

blog comments powered by Disqus