নিরাপত্তার জন্য যেন জন বিচ্ছিন্ন না হই :শেখ হাসিনা

July 15, 2017, 5:47 p.m. জাতীয়


তিনি বলেন, ক্ষমতাটা আমার কাছে ভোগের বস্তু নয়। ক্ষমতাটা যেন এ দেশের মানুষের কল্যাণে ব্যয় করতে পারি, দেশের মানুষের জন্য আমি যেন কাজ করেতে পারি।

কারু ডেস্ক :
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের (এসএসএফ) সদস্যদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, এ দেশের মানুষকে নিয়েই আমার কাজ। নিরাপত্তা অবশ্যই দেবেন, তবে নিরাপত্তার খাতিরে জনগণ থেকে যেন বিচ্ছিন্ন না হই- এ দিকটি খেয়াল রাখবেন।

তিনি বলেন, ক্ষমতাটা আমার কাছে ভোগের বস্তু নয়। ক্ষমতাটা যেন এ দেশের মানুষের কল্যাণে ব্যয় করতে পারি, দেশের মানুষের জন্য আমি যেন কাজ করেতে পারি।

শনিবার দুপুরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে শাপলা হলে এসএসএফ’র ৩১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এসএসএফ’র মহাপরিচালক মেজর জেনারেল শফিকুর রহমান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে যখন বাংলাদেশে বড় বড় নেতারা আসেন এবং আমাদের সিকিউরিটি দেখে তারা যখন প্রশংসা করেন তখন খুব ভালো লাগে। আপনাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব আপনারা যে কর্তব্য ও নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করছেন এ জন্য আমি কৃতজ্ঞ। ভবিষ্যতেও আপনাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব ও কর্তব্য নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করবেন- এটি আমি চাই।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশ এগিয়ে যাচ্ছে, এগিয়ে যাবে। সরকার যে পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে, তাতে আগামী ২০৪১ সালে বাংলাদেশ এশিয়ার মধ্যে একটি উন্নতর দেশে প্রতিষ্ঠিত হবে।

স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স বা বিশেষ নিরাপত্তা বাহিনী আইন প্রয়োগকারী একটি বিশেষ সংস্থা যা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, রাষ্টপতি, জাতির পিতার পরিবারবর্গসহ রাষ্ট্র কর্তৃক ঘোষিত অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের (ভিআইপি) নিরাপত্তায় নিয়োজিত। এসএসএফ বেসামরিক প্রশাসন, নিরাপত্তা ও গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর সঙ্গে সমন্বয় করে দেশ ও দেশের বাইরে উল্লেখিত ব্যক্তিদের শারীরিক নিরাপত্তায় যেকোনো ধরনের হুমকি থেকে রক্ষা এবং সেগুলো প্রতিরোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে। এছাড়া অতিগুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের বাড়ি ও অফিসে নিরাপত্তা দিয়ে থাকে সংস্থাটি।

blog comments powered by Disqus