বিশ্বাসঘাতকদের মাথা কেটে নেব : এরদোগান

যারা অভ্যুত্থান ঘটিয়ে আমাকে আর আমার সরকারকে হঠিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করেছিল, তাদের এ বার উচিত শিক্ষা দেব। সবক’টা বিশ্বাসঘাতকের মাথা কেটে নেব।

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ রবিবার ইস্তানবুলে এক সমাবেশে এই হুমকি দিয়েছেন খোদ তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোগান। গত বছরের ১৬ জুলাই তুরস্কের সেনাবাহিনী ট্যাঙ্ক, যুদ্ধবিমান আর হেলিকপ্টার দিয়ে ইস্তানবুলে প্রেসিডেন্ট প্রাসাদ আক্রমণ করেছিল। অভ্যুত্থান ঘটিয়ে প্রেসিডেন্ট এরদোগানকে ক্ষমতাচ্যুত করে মসনদ দখলের চেষ্টা করেছিল তুরস্কের সেনাবাহিনী। কিন্তু সেই চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যায়। মারা যান ২৫০-রও বেশি মানুষ।

তারই এক বছর পূর্তি উপলক্ষে রবিবার ইস্তানবুলে ওই সমাবেশের আয়োজন করে এরোদগান সরকার। সেখানেই তুরস্কের প্রেসিডেন্ট বলেন, যে সন্ত্রাসবাদী সংগঠনগুলি আর অভ্যুত্থানকারীরা আমাকে হঠিয়ে আমাদের সরকারকে ফেলে দিয়ে ক্ষমতা দখলের চেষ্টা করেছিল, তাদের এ বার উচিত শিক্ষা দেওয়া হবে। সব বিশ্বাসঘাতকেরই মাথা কেটে নেওয়া হবে।

‘বিশ্বাসঘাতক’দের কেন মাথা কেটে নেওয়া হবে, তার কারণও দর্শিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট। 

এরদোগান বলেছেন, ১৫ জুলাইয়ের (২০১৬) আক্রমণই আমাদের দেশের বিরুদ্ধে প্রথম হানাদারির ঘটনা নয়। তুরস্ককে অতীতেও এমন অনেক অভ্যুত্থানের হ্যাপা সামলাতে হয়েছে। ভবিষ্যতেও হবে। আর তাই আমরা এই বিশ্বাসঘাতকদের মাথা কেটে উচিত শিক্ষা দেব। আগামী দিনে এমন ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা হলে, তার পরিণতি কী হবে, তারই বার্তা দেব।